মেইন ম্যেনু

৩২ বছরে একবারই উদযাপিত হয়েছিল মাশরাফির জন্মদিন

সোমবার ৫ই অক্টোবর ছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার জন্মদিন। পারিবারিকভাবে তিনি যে জন্মদিন উদযাপন করেন এটা হয়তো অনেকেই জানেন। যদিও সোমবার মিরপুরে ভালবেসে তার জন্য একটি কেক এনেছিলেন সাংবাদিকেরা। সেই কেকটিও নিজে থেকে কাটেননি মাশরাফি, তবে কাটার পর খেয়েছেন।

12079443_901068156646348_2634042334471503217_n

সে সময় দৈনিক কালের কন্ঠকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নিজে থেকেই জানিয়েছেন তার জন্মদিন উদযাপন না করার পারিবারিক ইতিহাস, ‘একবার হয়েছিল। এক বছর বয়সের সেই স্মৃতি অবশ্য আমার মনে নেই। মায়ের কাছে শুনেছি খুব ঘটা করে জন্মদিনটা হয়েছিল। মায়ের ইচ্ছায় আমার নানা সব আয়োজন করেছিলেন। কিন্তু পরে নানাই মাকে ডেকে নিয়ে বলেছিলেন, ‘ছেলের জন্মদিন পালন করার সময় কি ভেবেছ যে ছেলেটার আয়ু এক বছর কমে গেল? যদি পারো ছেলের জন্মদিনে আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করে নামাজ পড়ো, যেন ছেলের সামনের দিনগুলো ভালো যায়। সেই থেকে আমার আর জন্মদিনের উৎসব হয়নি, বাসার কারোরই হয় না।’

12096044_901068209979676_6221603760164220007_n

মাশরাফি ও তার ছেলের জন্ম আবার একই দিনে। তাই ছেলের জন্মদিনে কাল বাসা থেকে বের হবার আগে ঘুমন্ত ছেলেকে একটু কোলে নিয়েছেন, আদর করে মাথায় হাত বুলিয়েছেন। নিজের মতই ছেলের জন্মদিনও কেকে কেটে উদযাপন করেননি। এ ব্যাপারে মাশরাফি মাশরাফি বলেন, ‘না। আমার চার বছর বয়সী মেয়েরও জন্মদিন হয়নি। তার মানে এই না যে আমি জন্মদিনবিরোধী। অন্যের জন্মদিনের নিমন্ত্রণে যাই,কেক-টেক খাইও। পাই। কাল রাতেই যেমন মক্কা থেকে মা ফোন করেছিলেন। চেনাজানা অনেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে; কিন্তু কেক আর কাটাকাটি করি না। তবে আবারও বলছি,এটা আমাদের বাসার রীতি। অন্যের জন্মদিন পালন করা নিয়ে আমার কোনো রকম আপত্তি নেই। কেউ আবার ভুল বুঝবেন না প্লিজ!’

11219315_901068279979669_2726304381701728459_n

সূত্রঃ কালের কণ্ঠ






মন্তব্য চালু নেই