মেইন ম্যেনু

৩৫তম বিসিএসে সুযোগ বাড়ল মেধাবীদের

৩৪তম বিসিএসের কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডারের পূরণ না হওয়া ৬৭২টি পদ ৩৫তম বিসিএসের মেধাতালিকা থেকে পূরণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ ছাড়া ৩৫তম বিসিএসেও কোটা অপূরণ থাকলে তা মেধাতালিকা থেকে পূরণ করা হবে।

ফলে ৩৫তম বিসিএসে সুযোগ বাড়ল মেধাবীদের।

সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে পদসংক্রান্ত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২০১০ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি জারি করা স্মারকের শর্ত এককালীন শিথিল করার মাধ্যমে এ অনুমোদন দেয়া হয়।

বৈঠক শেষে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ-সচিব শফিউল আলম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

এই অনুমোদনের ফলে ৩৪তম বিসিএসের অপূরণ ৬৭২টি পদ ও ৩৫তম বিসিএসের ১৮০৩টি শূন্যপদসহ মোট ২৪৭৫টি পদ ৩৫তম বিসিএসের মাধ্যমে পূরণ করা হবে।

কারিগরি/পেশাজীবী ক্যাডারের ৩০ শতাংশ পদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের জন্য সংরক্ষিত। সাধারণত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্য যোগ্য প্রার্থী পাওয়া না গেলে সেই অপূরণ পদে সাধারণ প্রার্থীদের নিয়োগ দেয়া হয় না।

সরকারি কর্মকমিশন (পিএসসি) সরকারকে জানিয়েছে, কারিগরি ও পেশাগত ক্যাডারের ক্ষেত্রে এই সমস্যা তীব্র হচ্ছে। তাই মন্ত্রিসভা বৈঠকে কোটা সংরক্ষণ করার সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার প্রস্তাব দেয়া হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ৩৪ ও ৩৫তম বিসিএসের কারিগরি বা পেশাগত ক্যাডারের এসব পদ পূরণে এককালীন কোটা সংরক্ষণের নিয়ম শিথিল করার জন্য সভায় প্রস্তাব উঠলে তাতে সায় দেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি এ পদগুলো মেধাতালিকা থেকে প্রার্থী নিয়ে পূরণের নির্দেশনা দেন।






মন্তব্য চালু নেই