মেইন ম্যেনু

৩৫ বিটে বিভক্ত রাজশাহী মহানগর

সরকার দুলাল মাহবুব, রাজশাহী থেকে: অপরাধ দমন ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষার স্বার্থে বিট পুলিশিংয়ের আওতায় এসেছে রাজশাহী মহানগর। নগরীর চার থানা এলাকা এরই মধ্যে ৩৫টি বিটে বিভক্ত করা হয়েছে। প্রতিটি বিটে নিয়োজিত করা হয়েছে দুই থেকে তিনজন পুলিশ অফিসার।

শনিবার দুপুরে মহানগর কমিউিনিটি পুলিশিং কমিটি নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়কালে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) কমিশনার শফিকুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, বিট পুলিশিংয়ে নিয়োজিত পুলিশ সদস্যরা প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে খোঁজ নেবে কারও কোনো সমস্যা আছে কী না। কোনো সমস্যা হলে প্রথমে তারা স্থানীয়ভাবেই সেটি সমাধানের চেষ্টা করবেন। আর সমাধানযোগ্য না হলে বিষয়টি থানায় যাবে।

আরএমপি কমিশনার বলেন, গত কোরবানী ঈদের পর থেকেই নগরীতে বিট পুলিশিংয়ের কার্যক্রম চালু হয়েছে। প্রতিটি বিটে একজন উপপরিদর্শকের (এসআই) নেতৃত্বে দুইজন সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) কাজ করছেন। আপাতত তারা তাদের সরকারি মোবাইল নম্বর প্রতিটি বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছেন। পাশাপাশি তারা ভাড়াটিয়াদেরও তথ্য সংগ্রহ করছেন। এ জন্য তারা প্রতিদিনই ঘুরছেন দায়িত্বরত এলাকায়। এতে বেশ ভালো সাড়া পাওয়া যাচ্ছে।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্সে অনুষ্ঠিত ওই মতবিনিময় সভায় পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণসহ কমিউিনিটি পুলিশিংয়ের থানা এবং ওয়ার্ড পর্যায়ের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণ উপস্থিত ছিলেন। নগরীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির সর্বোচ্চ উন্নয়নের জন্য আরএমপি কমিশনার তাদের সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান।






মন্তব্য চালু নেই