মেইন ম্যেনু

৪ জুন বাজেট পেশ

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত আগামী ৪ জুন বিকেল ৩ টায় ২০১৫-১৬ অর্থবছরের বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করবেন। অর্থমন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা শাহেদুর রহমান সোমবার একথা জানান।

এটি হবে মহাজোট সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদের দ্বিতীয় এবং অর্থমন্ত্রীর ব্যক্তিগত নবম বাজেট উপস্থাপন। এছাড়া একাধারে সাত বার বাজেট দিয়ে অর্থমন্ত্রী মুহিত বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে যাচ্ছেন। এবারও ডিজিটাল পদ্ধতিতে অর্থাৎ পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে বাজেট উপস্থাপন করা হবে।

ওই দিন বাজেট বক্তৃতা: সম্পূরক আর্থিক বিবৃতি; প্রজাতন্ত্রের সরকারি হিসাব; সংযুক্ত তহবিল-প্রাপ্তি; মঞ্জুরি ও বরাদ্দের দাবিসমূহ (অনুন্নয়ন ও উন্নয়ন); মঞ্জুরি ও বরাদ্দ দাবিসমূহ (উন্নয়ন); নারী উন্নয়ন ও অধিকার প্রতিষ্ঠায় চল্লিশটি মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম; শিশুদের নিয়ে বাজেট ভাবনা, মধ্যমেয়াদি সামষ্টিক অর্থনৈতিক নীতি বিবৃতি; মধ্যমেয়াদি বাজেট কাঠামো; বার্ষিক আর্থিক বিবৃতি; বাজেটের সংক্ষিপ্তসার; বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমীক্ষা-২০১৫ এবং ডিজিটাল বাংলাদেশের পথে অগ্রযাত্রাঃ হালচিত্র ২০১৫ ওয়েবসাইটে প্রকাশসহ জাতীয় সংসদ হতে সরবরাহ করা হবে।

একই সঙ্গে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগ প্রণীত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের কার্যাবলী- ২০১৪-১৫ জাতীয় সংসদে পেশ করা হবে।

বাজেটকে আরো অংশগ্রহণমূলক করার লক্ষ্যে অর্থ বিভাগের ওয়েবসাইট www.mof.gov.bd-এ বাজেটের সকল তথ্যাদি ও গুরুত্বপূর্ণ দলিল যে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান পাঠ ও ডাউনলোড করতে পারবেন এবং দেশ বা বিদেশ থেকে উক্ত ওয়েবসাইটের মাধ্যমে ফিডব্যাক ফরম পূরণ করে বাজেট সম্পর্কে মতামত ও সুপারিশ প্রেরণ করা যাবে।

প্রাপ্ত সব মতামত ও সুপারিশ বিবেচনা করা হবে। জাতীয় সংসদ কর্তৃক বাজেট অনুমোদনের সময়ে ও পরে তা কার্যকর করা হবে।

ব্যাপকভিত্তিক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকারি ওয়েবসাইট লিংক www.bangladesh.gov.bd; www.nbr-bd.org; www.plancomm.gov.bd; www.imed.gov.bd; www.pressinform.portal.gov.bd, www.pmo.gov.bd এবং বেসরকারি ওয়েবসাইট লিংক www. bdnews24.com ঠিকানায় বাজেট সংক্রান্ত তথ্য পাওয়া যাবে।

বাজেট উপস্থাপনের পরদিন অর্থাৎ ৫ জুন শুক্রবার বিকেল ৪ টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বাজেটোত্তর সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।






মন্তব্য চালু নেই