মেইন ম্যেনু

৫০ বছর আগে যে বিষয়গুলোকে মানতে পারতো না সমাজ

প্রতিনিয়ত পরিবর্তিত হচ্ছে সমাজ ব্যবস্থা। যার প্রেক্ষাপট মূলত: অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক, আবহাওয়া, জলবায়ু এবং ব্যক্তি চিন্তার পরিবর্তনের মধ্যে নিহীত। সময়ের সাথে সাথে পরিবর্ততি হয় মানুষের আচার ব্যবহার, চিন্তা-ভাবনা এবং রুচি। ফলে স্বাভাবিকভাবে ৫০ বছর আগে যে জিনিসগুলো মানুষ মানতে পারত না সেগুলো এখন হরহামেশা ঘটছে। এরকম কিছু বিষয় প্রিয়.কম পাঠকদের জন্য প্রকাশ করা হলো।

যুক্তরাজ্যের সমাজে ঘটেছে এমন কিছু বিষয় যেগুলো সমসাময়িক সমাজ ব্যবস্থা মানত না সেগুলোর বিষয়ে জানতে চেয়ে রেডিটে প্রশ্ন করেন এক ব্যক্তি। তার প্রশ্নের জবাবে যেসব বিষয় উঠে এসেছে সেগুলো নিয়ে দেশটির সংবাদ মাধ্যম মেট্রো ডটকম প্রকাশ করেছে একটি প্রতিবেদন। প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে তুলে ধরা হয়েছে ১৯৬০ সালের পর থেকে যুক্তরাজ্যে পরিবর্তিত হওয়া এমন কিছু বিষয় যেগুলোকে ৫০ বছর আগে সমাজ মেনে নিতে পারতো না। মেট্রোর সেই প্রতিবেদনে তুলে ধরা বিষয়গুলো প্রিয়র পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

বিয়ের আগে একসাথে বসবাস

বিয়ের আগে তরুণ তরুণীর একসাথে বসবাস করার বিষয়টি এখন খুবই স্বাভাবিকভাবে নেওয়া হয় যুক্তরাজ্যের সমাজে। কিন্তু সমাজে খুব স্বাভাবিক হওয়া এ বিষয়টিকে অবাক করার মতো বিষয় বলে মন্তব্য করে কিছু রেডিট ব্যবহারকারী বলেছেন, আগে বিষয়টিকে বিরাট পাপ হিসেবে দেখা হতো।

ধূমপান
বর্তমানে ধূমপান নিষিদ্ধ হওয়ার বিষয়টাতে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকেই। একজন ব্যবহারকারীতো বলেই বসেছেন, আমি যখন ছোট ছিলাম তখন যদি আমাদের বাড়িতে রাতে কোনো অতিথি আসতেন এবং তাদের মধ্যে কেউ ধূমপান করতেন তবে তারা অনুমতি না নিয়েই ধূমপান করে ফেলতেন। কিন্তু এখন বিষয়টা সম্পূর্ণভাবে বদলে গেছে।

ট্যাটু

শরীরে ট্যাটু আঁকার বিষয়টিকেও বিরাট পরিবর্তন বলে উল্লেখ করেছেন জিম ডিক্সন নামের এক ব্যক্তি।

হস্তমৈথুন

হস্তমৈথুন করাকে আগে লোকজন সাধারণভাবে নিতে না পারলেও এখন বিষয়টি অনেক স্বাভাবিক বলে মন্তব্য করেছেন রেডিট ব্যবহারকারীরা।

বাড়ির বাইরে বাচ্চাদের খেলাধুলা করা

ইলিফ বিংলি নামের ৫২ বছর বয়সী এক রেডিট ব্যবহারকারী বলেছেন, আগে বাচ্চারা বাড়ির বাইরে প্রচুর খেলাধুলা করতো, রাস্তায় কিংবা মাঠে। কিন্তু এখনকার বাচ্চারা বেশিরভাগ সময়ই ঘরে বসে সময় কাটায়। এ বিষয়টাকে আগে অসুস্থতা বলে মনে করা হতো।

পুরুষাঙ্গের ছবি

৩৫ বছর আগে আপনি যদি বলতেন কোনো পুরুষ তার লিঙ্গের ছবি তুলেছেন সেটা আপনি কাউকে বিশ্বাসই করাতে পারতেন না। কিন্তু সময়ের সাথে কতটা পরিবর্তিত হয়েছে সমাজ।

অগোছালো থাকা

অগোছালো থাকার বিষয়টি এখন ফ্যাশনে পরিণত হলেও কিছুদিন আগেও শেষকৃত্য অনুষ্ঠানেও লোকজন অগোছালো হয়ে যেত না।

কম গোপনীয়তাকে স্বাভাবিকভাবে নেওয়া

ইন্টারনেট ব্যবহারের ফলে মানুষের অনেক গোপন বিষয়ই ফাঁস হয়ে যেতে পারেও জেনেও এটিকে স্বাভাবিকভাবে নেওয়ার বিষয়টি আগে কল্পনাও করা যেত না।

লৈঙ্গিক কাজের পরিবর্তন

আগে যেমন স্বাভাবিকভাবেই মনে করা হতো গৃহস্থালীর কাজগুলো নারীরাই করবে কিন্তু এখন আর সে ধারণাটি নেই। অতীতকে মনে করতে গিয়ে এক রেডিট ব্যবহারকারী বলেছেন, ৮০’র দশকে আমার যখন বিয়ে হয় তখন আমার বরের বেতন আমার চাইতে কম। আমাদের যখন বাচ্চা হয় তখন বাচ্চাদের দেখাশুনার জন্য আমি চাকরিটা ছেড়ে দেই। কিন্তু এখন সে ধারণার কতটা পরিবর্তন হয়েছে।

সমকামী অধিকার

১৯৬৭ সালেও সমকামিতাকে অপরাধ হিসেবে দেখা হতো এবং সমকামিদের জেলে পাঠানো হতো। কিন্তু ৫০ বছরের মধ্যে পরিবর্তিত হয়েছে অনেক কিছু। সমলিঙ্গের বিয়ে এখন মাত্র ব্যক্তির ইচ্ছার ব্যাপার।






মন্তব্য চালু নেই