মেইন ম্যেনু

৫৭ ধারা বাতিলের দাবি গণজাগরণ মঞ্চের

তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারাকে সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক ও গণবিরোধী ‘কালো আইন’ হিসেবে আখ্যায়িত করে তা বাতিলের দাবি জানিয়েছে গণজাগরণ মঞ্চ।

শুক্রবার সন্ধ্যায় শাহবাগের প্রজন্ম চত্বরে এক বিক্ষোভ সমাবেশে এ দাবি জানান মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকার।

একই সঙ্গে শহীদ সন্তান সাংবাদিক প্রবীর শিকদারের বিরুদ্ধে করা হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

ইমরান এইচ সরকার বলেন, এই আইনে সাধারণ মানুষকে মতপ্রকাশের অপরাধে যেকোনো সময় জেলে যেতে হতে পারে। মাসের পর মাস, দিনের পর দিন হয়রানি আর জেল খাটতে হতে পারে।

৫৭ ধারা বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে অনর্থক করে দিতে পারে মন্তব্য করে ইমরান বলেন, শুধু বাকস্বাধীনতা নয়, যে স্বাধীনতা আমরা অর্জন করেছি, মানুষের মুক্তির জন্য, অধিকার আদায়ের জন্য সেই স্বাধীনতাকে অনর্থক করে দেবে এটি। আমরা কথা বলতে পারব না, ভিন্নমত পোষণ করতে পারব না।

তিনি আরো বলেন, ২০০৬ থেকে এই ৫৭ ধারার বিরুদ্ধে আমরা কথা বলে এসেছি। কারণ এই ধারা মানুষের বাকস্বাধীনতার অধিকার হরণ করবে। তাই সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক এই ধারা বহাল রাখা চলবে না। অবিলম্বে এটি বাতিল করতে হবে।

সমাবেশ শেষে একটি বিভোক্ষ মিছিল বের করে গণজাগরণ মঞ্চ। মিছিলটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি ঘুরে পুনরায় শাহবাগে গিয়ে শেষ হয়।






মন্তব্য চালু নেই