মেইন ম্যেনু

৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্রের বিজয়’ সমাবেশ করবে আ’লীগ

৫ জানুয়ারি গণতন্ত্রের ‘বিজয় দিবস’ উপলক্ষে রাজধানীসহ সারাদেশে সমাবেশ করবে আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর ধানমণ্ডির প্রিয়াংকা কমিউনিটি সেন্টারে আওয়ামী লীগের এক যৌথসভা শেষে দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

১০ জানুয়ারি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের জনসভা সফল করার লক্ষ্যে দলের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদ, ঢাকার পার্শবর্তী জেলা (ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, মানিকগঞ্জ, গাজীপুর জেলা, গাজীপুর মহানগর, নারায়ণগঞ্জ জেলা ও নারায়ণগঞ্জ মহানগর) ও উপজেলাসমূহের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, দলীয় জাতীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা চেয়ারম্যান ও পৌরসভার মেয়রদের সমন্বয়ে এই যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় ওবায়দুল কাদের বলেন, গণতন্ত্রের ‘বিজয় দিবস’ উপলক্ষে ৫ জানুয়ারি রাজধানীসহ সারাদেশের জেলা-উপজেলা পর্যায়ে সমাবেশ হবে। রাজধানীতে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ উত্তরের উদ্যোগে রাসেল স্কয়ারে ও ২৩ বঙ্গবন্ধ এভিনিউতে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের দক্ষিণের উদ্যোগে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচন ফেয়ার হয়নি, খালেদা জিয়ার এমন বক্তব্য প্রতাহারের আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের এ সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, আপনার বক্তব্য জাতির সামনে প্রমাণ করুন। আর প্রমাণ করতে না পারলে প্রত্যাহার করুন।

জেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে বিএনপির নেতাদের বক্তব্যের সমালোচনা করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কোন সংবিধানের বলে জিয়াউর রহমান এদেশের রাষ্ট্রপতি হয়েছিলেন, আমরা জানতে চাই। সংবিধানের কথা বলবেন না। আপনারাই সংবিধান রক্তাক্ত ও পদদলিত করেছেন। আপনাদের মুখে সংবিধানের কথা, ভূতের মুখে রাম রাম।’

তিনি বলেন, ২০০০ সালে আমরা সরকারে থাকার সময় জেলা পরিষদের আইন হয়েছে। এটা সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হলে, আপনারা সংশোধন করেন নি কেন?

এসময় তিনি দাবি করেন, জেলা পরিষদ নির্বাচন সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক কিছু নয়।

যৌথ সভায় ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলার নেতাদের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, মুহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই