মেইন ম্যেনু

৫ ভাষায় অনুবাদ হচ্ছে মাওলানা মাসঊদের ফতোয়া

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে এক লাখ আলেমের ফতোয়ার কপি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আগামী ১১ আগস্ট দেয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর হাতে এই ফতোয়ার কপি হস্তান্তর করার পরই ওআইসি, ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও জাতিসংঘে পাঠানো হবে। ইতিমধ্যে ৩২ পৃষ্ঠার এই ফতোয়া বাংলা, আরবি এবং ইরেজি ভাষায় করা হয়েছে। এখন ফ্রান্স ও তামিল এবং মালয় ভার্সনের কাজ চলছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দেশে সম্প্রতি বেশক’টি গুপ্তহত্যার প্রেক্ষাপটে চলতি বছরের ১৮ জুন শোলাকিয়ার ঈদগাহ ময়দানের ইমাম এবং বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদের উদ্যোগে ‘এক লক্ষ মুফতি, উলামা ও আইম্মার দস্তখত সম্বলিত সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী মানবকল্যাণে শান্তির ফতওয়া’ শীর্ষক ফতোয়া প্রকাশ করা হয়।

সারাদেশের ১ লাখ ১ হাজার ৮৫০ জন মুফতি, আলেম-উলামা এই ফতোয়ায় স্বাক্ষর করেন। এর মধ্যে ৯২ হাজার ৫৩০ পুরুষ আলেম-মুফতি এবং ৯ হাজার ৩২০ জন নারী আলেম-মুফতি রয়েছেন। লক্ষাধিক আলেম-উলামার স্বাক্ষরিত ফতোয়াটি ৩২ পৃষ্ঠার। এতে কোরআন ও হাদিসের দলিলের ভিত্তিতে ১০টি প্রশ্নের উত্তর দেয়া হয়েছে। এই ফতোয়ায় জঙ্গিবাদ ও আত্মঘাতী হামলাকে ‘হারাম’ আখ্যা দেয়া হয়েছে।

এই ফতোয়া প্রকাশের পর দেশ-বিদেশে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়।

এই ফতোয়া ও দস্তখত সংগ্রহ কমিটির যুগ্ম সদস্য সচিব এবং বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার ঢাকা মহানগরী সাধারণ সম্পাদক মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন বলেন, আগামী ১১ আগস্ট বেলা ১১টায় রাজধানী খামারবাড়ী কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশনে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে ফতোয়ার কপি আনুষ্ঠানিকভাবে তুলে দেবেন আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ। এরপরই অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশন (ওআইসি), ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও জাতিসংঘে পাঠানো হবে। ওআইসিকে আরবি এবং জাতিসংঘকে ইংরেজি ভার্সনে দোয়া হবে। এখন আনুষ্ঠানিকভাবে কপি হস্তান্তর সময়ের ব্যাপার মাত্র। আর ইইউকে দেয়ার জন্য এখন ফরাসিতে ভাষান্তরের কাজ চলছে।

এই তিনটি সংস্থার বাইরেও সৌদি আরব, জাপান, ইরান, শ্রীলংকা, মালয়েশিয়া ফতোয়ার কপি পাঠানো হয়েছে। এরমধ্যে সৌদি এবং ইরানে আরবি, জাপানে ইংরেজি ভার্সনের কপি পাঠানো হয়েছে। এছাড়া মালেশিয়ায় আরবি এবং ইংরেজি ভার্সনের কপি পাঠানো হয়েছে, সেখানে এখন মালায় ভার্সনের কাজ চলছে।

এছাড়া শ্রীলংকায়ও বাংলাদেশে লাখো আলেমের এই ফতোয়ার কপি পাঠানো হয়েছে। শ্রীলংকা জমিয়তুল উলামার উদ্যোগে এই ফতোয়া তামিল এবং সিংহল ভাষায় ছাপানোর কাজ চলছে বলে জানান মাওলানা সদরুদ্দীন মাকনুন ।






মন্তব্য চালু নেই