মেইন ম্যেনু

৫ হাজার টাকায় শিশুকন্যা বিক্রি করলেন বাবা-মা!

ভারতের হায়দরাবাদের পুসরলা সিন্ধুর শহরে দারিদ্রতার কারণে চার বছরের শিশুকন্যাকে বিক্রি করে দিলেন মা-বাবা। পুলিশ সূত্রে খবর, খাম্মাম জেলার মানাগুরুতে পরমেশ্বর ও শান্তা নামে এক দরিদ্র দম্পতি তাদের চার মাসের কন্যাসন্তানটিকে বিক্রি করে দিয়েছেন।

১২ দিন আগে আন্নি নামে বাচ্চাটিকে কিনে নেন রামবাবু ও লাবণ্য নামে আর এক দম্পতি। তাদের পুত্র সন্তান রয়েছে। শখ ছিল কন্যাসন্তানের। আর তাই এই মেয়েটিকে মাত্র ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে কিনে নেন তারা। অঙ্গনওয়াড়ি কর্মীরা টিকা দেওয়ার সময় দেখতে পান এই শিশুটিকে।

ওই পরিবারে কোন কন্যাসন্তান ছিল না। হঠাৎ চারমাসের সন্তানকে দেখে খটকা লাগে কর্মীদের। পরে খোঁজখবর নিয়ে মেয়েটির প্রকৃত মা-বাবার খোঁজ পায় নারী ও শিশুকল্যাণ অধিদফতর। জানা গেছে, দারিদ্রের কারণেই নিজেদের কন্যা সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছিলেন শান্তা। যদিও এখনও মেয়েকে বিক্রির টাকা তিনি হাতে পাননি। এর মধ্যেই শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। আপাতত ইউসুফগুড়ার এক শিশুবিহারে রাখা হয়েছে শিশু অান্নিকে।

জুভেনাইল জাস্টিস অ্যাক্টে আন্নির প্রকৃত মা-বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে। কিন্তু যে শহরের এক মেয়ে বিশ্বে ভারতীয় মেয়েদের সাফল্যের মুখপাত্র হয়ে উঠেছে সেখানেই দারিদ্রের জন্য কন্যা সন্তানের বিক্রি হওয়ার ঘটনায় বিস্ময় জেগেছে। নারীশক্তির এই উচ্ছ্বাসের ভিতর কন্যা সন্তান প্রতিরক্ষার দিকটি দেশে কতটা সুরক্ষিত, সে প্রশ্নই এখন উঠছে বিভিন্ন মহলে।-সংবাদ প্রতিদিন






মন্তব্য চালু নেই