মেইন ম্যেনু

৫ হাজার বছরের পুরনো গাছে হঠাৎ পরিবর্তন!

গাছটির মাঝে হঠাৎই এক ধরণে পরিবর্তন লক্ষ করা যাচ্ছে। এই পরিবর্তনে হতবাক বড় বড় বিজ্ঞানীরা। ৫ হাজার বছরের পুরোনো ইউরোপের অন্যতম প্রাচীন গাছগুলোর মাধ্যে এটি একটি। কিন্তু এই গাছটিতে একটি সময় ফল দিতো না আজ সেই গাছে ফল লক্ষ করা যাচ্ছে।

দীর্ঘ ৫ হাজার বছর পর স্কটল্যান্ডের ফর্টিঙ্গল ইউ গাছটির মাঝে এই পরিবর্তনের খবর জানা গেছে। টাইমস আপ ইন্ডিয়ার এক প্রতি বেদনে এই খবরটি জানা গেছে।

খবরে বলা হয়, স্কটল্যান্ডের ফর্টিঙ্গলে গির্জা এলাকায় ইউ গাছটি ইউরোপের প্রাচীনতম গাছগুলির মধ্যে অন্যতম। ইউ গাছের বৈশিষ্ট হল, এই গাছগুলো সবই একই জাতের হয়ে থাকে। ফল না দেয়া গাছের বংশবৃদ্ধির সময় পরাগ বের হয়। আর ফল দেয়া গাছে উজ্জ্বল লাল রঙের বেরি দেখা যায়। ফর্টিঙ্গলের ইউ গাছটির মধ্যে একটি অদ্ভুত পরিবর্তন দেখেই চমকে ওঠেন এডিনবরার রয়্যাল বোটানিক গার্ডেনের উদ্ভিদ বিজ্ঞানী ম্যাক্স কোলম্যান। কোলম্যান তার ব্লগে লেখেন, অক্টোবরের শেষের দিকে ওই ফল না দেয়া ইউ গাছটিতে উজ্জ্বল লাল রঙের বেরি দেখা গিয়েছে।

যদিও বাকি গাছগুলিতে ফল না দেয়া গাছের সব বৈশিষ্টই দেখা গিয়েছে। এর থেকে স্পষ্ট, প্রাচীন ইউ গাছটির মাঝে হঠাৎই পরিবর্তন লক্ষ করা যায়। যা এখনও নজিরবিহীন। কোলম্যানের কথায়, ‘সাধারণত এ সকল গাছের মাঝে পরিবর্তন হলে, একেবারের উপরের অংশে একটু পরিবর্তন হয়। তবে গোটা গাছের মাঝে এই ভাবে পরিবর্তন হয় না। কিন্তু ফর্টিঙ্গল ইউ গাছটির একটি শাখায় সম্পূর্ণ ফলদেয়া গাছের বৈশিষ্ট লক্ষ্য করা যাচ্ছে।’



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই