মেইন ম্যেনু

৬৫০ নিহত হাজির ছবি প্রকাশ, বাংলাদেশি ৩

মিনায় পদদলিত হয়ে মারা যাওয়া ৭৬৯ জন হাজির মধ্যে ৬৫০ জনের ছবি প্রকাশ করেছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে তিনজন বাংলাদেশি রয়েছেন। বাকিদের ছবি আজ (রোববার) বা আগামীকাল প্রকাশ করা হতে পারে।

রোববার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য দেয়া হয়েছে।

জেদ্দার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের বরাত দিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, নিহত বাংলাদেশি তিনজনের মধ্যে দু’জনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- খুলনার মো. শহীদুল ইসলাম আর ঢাকার সাভারের আমিনুর রহমান। অন্য আরেক পুরুষ হাজিকে বাংলাদেশি বলে শনাক্ত করা হলেও তার পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, মিনায় পদদলনের শিকার হয়ে থাকতে পারেন এমন বাংলাদেশি হাজিদের ছবি মক্কায় বাংলাদেশ হজ মিশনে টানিয়ে দেয়া হয়েছে। যাতে করে হজ এজেন্ট, আত্মীয়স্বজন ও পরিচিতজনেরা তাদের শনাক্ত করতে পারেন। মেডিকেল দলগুলো মক্কার বিভিন্ন হাসপাতালে কাজ করছে ও নিখোঁজ হাজিদের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করছে।

মন্ত্রণালয় আরো জানিয়েছে, রিয়াদে বাংলাদেশ দূতাবাস ও জেদ্দার বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল হজ মিশনের সঙ্গে মিলে কাজ করে যাচ্ছে।

বিজ্ঞপ্তিতে নিখোঁজ হাজিদের বিষয়ে রিপোর্ট করতে অন্য হাজি, তাদের সঙ্গী, আত্মীয়স্বজন, হজ গাইড ও এজেন্টদের প্রতি অনুরোধ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ভোরে শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের সময় ভিড়ে পদদলিত হয়ে ৭১৭ হাজি মারা যান মিনায়। আহত হন আট শতাধিক। তবে ইরানের মিডিয়াগুলো নিহতের সংখ্যা দুই হাজারেরও অধিক বলে দাবি করছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে পদদলিত হয়ে মৃত্যুর এই ঘটনাকে গত ২৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। হাজিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারায় বিভিন্ন দেশ সৌদি কর্তৃপক্ষের কড়া সমালোচনা করছে। আঞ্চলিক প্রতিপক্ষ ইরানের কাছ থেকে সমালোচনার তীরটা ছুঁটে আসছে তীব্র হয়ে।






মন্তব্য চালু নেই