মেইন ম্যেনু

৬ সমস্যার সমাধানে পেয়ারা পাতার চা

পেয়ারা সকলের পছন্দের একটি ফল। এবং এর পুষ্টিগুণও অনেক-এটা সকলেরই জানা। কিন্তু পেয়ারা পাতার গুণ সম্পর্কে জানা আছে কী? পেয়ারা পাতার গুণও কিন্তু কম নয়। বিশেষ করে চায়ের ক্ষেত্রে।

চায়ের মধ্যে কচি পেয়ারা পাতা ফুটিয়ে খাওয়ার রেওয়াজ রয়েছে মেক্সিকো এবং দক্ষিণ আমেরিকার অনেক দেশে। পুষ্টিবিদদের মতে, পেয়ারা পাতায় রয়েছে ভিটামিন সি। এছাড়াও এমন অনেক উপাদান রয়েছে যা আমাদের নানাবিধ রোগ সারাতে কাজে লাগে।

* ডায়রিয়া:‌ এই রোগের জন্য দায়ী ব্যাকটেরিয়াকে নির্মূল করার ক্ষমতা রাখে পেয়ার পাতার চা। পেটের ব্যথাও কমায়।

* কোলেস্টেরল:‌ একটি গবেষণায় দেখা গেছে, পেয়ারা পাতার চা আট সপ্তাহ খেলে শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা উল্লেখযোগ্যভাবে কমে যায়।

* ডায়াবেটিস:‌ পেয়ারা পাতাকে ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় ব্যবহার করা যায়। খাওয়াদাওয়ার পর পেয়ারা পাতার চা খেলে রক্তের দু‌ই ‌ধরনের সুগার- সুক্রোজ এবং মেলাটোজ নিয়ন্ত্রণে থাকে।

* ওজন হ্রাস:‌ জটিল শ্বেতসারকে ঝরাতে সাহায্য করে পেয়ারা পাতায় থাকা উপাদান। তাই পেয়ারা পাতার রস বা চা খেতে পারেন।

* সর্দি-কাশি:‌ পেয়ারা পাতা ভিটামিন সি এবং আয়রনে সমৃদ্ধ। সর্দি-কাশিতে শ্লেষ্মা কমাতে পেয়ারা পাতার চা কিংবা পেয়ারা পাতা ফুটানো পানি দিয়ে কুলকুচি উপকারী।

* দাঁত ব্যথা:‌ পেয়ারা পাতার চা দাঁত ব্যথা, মাড়ি ফুলে যাওয়ার মতো রোগ সারাতে পারে। পাতা বাটা পেস্ট করে দাঁত মাজলেও উপকার পাবেন।

তথ্যসূত্র: আজকাল






মন্তব্য চালু নেই