মেইন ম্যেনু

৭০ বছর পর আসছে হিটলারের বই

নাৎসি নেতা অ্যাডলফ হিটলারের ইহুদিবিরোধী ম্যানিফেস্টো ‘মাইন কাম্পফ’, যার আক্ষরিক অর্থ ‘আমার সংগ্রাম’ বাজারে আসছে। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর জার্মানিতে এই বইয়ের পুনর্মুদ্রণ নিষিদ্ধ ছিল।

তবে নতুন যে সংস্করণটি বাজারে পাওয়া যাবে তাতে মূলপাঠের সঙ্গে সঙ্গে সমালোচনামূলক টীকা-ভাষ্যও যুক্ত থাকবে, যার উদ্দেশ্য হলো, বইটি যে বাজেভাবে লেখা এবং এর বক্তব্য যে অসংলগ্ন, তা তুলে ধরা।

শুক্রবার বিবিসি অনলাইনে এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ইহুদি সংগঠনগুলোও এই নতুন সংস্করণ প্রকাশকে স্বাগত জানিয়েছে, এবং তারা বলছে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন ইহুদি নিধনযজ্ঞ কেন ঘটেছিল, তা ব্যাখ্যা করতে এটা সহায়ক হবে।

হিটলার জার্মানির ক্ষমতায় আসার আট বছর আগে ১৯২৫ সালে ‘মাইন কাম্পফ’ প্রথম প্রকাশিত হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ১৯৪৫ সালে নাৎসি জার্মানির পরাজয় নিশ্চিত বুঝতে পেরে তার বাংকারে আত্মহত্যা করেন হিটলার।

এরপর বইটির কপিরাইটের মালিক হয় জার্মানির দক্ষিণাঞ্চলীয় ব্যাভারিয়ার আঞ্চলিক সরকার। তারা বইটি ঘৃণা ছড়াতে পারে এ আশঙ্কায় এর পুনর্মুদ্রণ নিষিদ্ধ করে। তবে যুদ্ধের সময় বইটি এত ছাপা হয়েছিল যে তার কপি সারা দুনিয়াতেই সহজপ্রাপ্য।

জার্মান আইন অনুযায়ী কপিরাইটের মেয়াদ হলো ৭০ বছর এবং তা পার হয়ে যাওয়ায় এর পুনর্মুদ্রণে আর বাধা নেই।

অবশ্য জার্মান কর্মকর্তারা বলছেন, তারা এ বইয়ের মূলপাঠ সবাই যেন হাতে না পায়, তার জন্য কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করবেন। কারণ এমন ভয় আছে যে বইটি নব্যনাৎসি মনোভাব উসকে দিতে পারে।

অনেকে মনে করেন ‘মাইন কাম্পফ’ একটি ‘শক্তিশালী’ গ্রন্থ এবং এর বক্তব্য পাঠককে ‘মোহিত’ করে ফেলে।






মন্তব্য চালু নেই