মেইন ম্যেনু

৭ বছরের শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে ৪৫ বছরের এক ব্যক্তিকে আটক

টিপু সুলতান (রবিন), সাভার প্রতিনিধি : সাভারের আশুলিয়ায় ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে ৪৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে আশুলিয়ার টেঙ্গুরী বড়টেক এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

আটক মো. শামিম (৪৫) কুষ্টিয়া জেলার দাশতপুর থানার গয়ারিল গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে। সে টেঙ্গুরী এলাকার রাজ্জাক মিয়ার মালিকানাধীন একটি ফার্নিচারের দোকানে কাজ করতো।

ধর্ষিতা শিশুর বাবা ফরহাদ হোসেন জানান, টেঙ্গুরী এলাকায় ভাড়া বাসা নিয়ে তারা দম্পতি ও দুই শিশুকে নিয়ে বাস করতেন। এরপর শুক্রবার সকালে তারা গার্মেন্টে চলে গেলে তার ৭ বছর বয়সী শিশু কণ্যা একা কক্ষে প্রতিদিনের ন্যায় টিভি দেখছিলো। এসময় পার্শ্ববর্তী কক্ষের ভাড়াটিয়া শামিম কৌশলে তাদের কক্ষে ঢুকে তাদের শিশু কণ্যাকে ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। ঘটনাটি পাশের কক্ষের ভাড়াটিয়ারা টিনের বেড়ার ফোকর দিয়ে দেখে শামিমকে অপ্রীতিকর অবস্থায় হাতেনাতে আটক করে। পরে সেখান থেকে কৌশলে পালিয়ে যায় শামিম। দুপুরে এলাকাবাসীর হস্তক্ষেপে শামিম দোষ শিকার করলেও নিজের গলায় ব্লেড চালায়। পরে সাভারের গণ¯^াস্থ্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে রাতে বাসায় ফিরলে স্থানীদের খবরে তাকে আটক করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী অপর কক্ষের ভাড়াটিয়া মো. জসিম জানান, এর আগেও কয়েকবার শামিম নামের ওই ব্যক্তি এধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটিয়ে থাকলেও তাকে শালিশীর মাধ্যমে সাবধান করে দেওয়া হয়েছিলো।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসিনুল কাদির ঢাকাটাইমসকে জানান, এঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।






মন্তব্য চালু নেই