মেইন ম্যেনু

৮০ লাখ মানুষের স্মরণে ৮০ লাখ গাছ

গত ৫০ বছরে ফার্ক বিদ্রোহীদের সঙ্গে সংঘর্ষে কলম্বিয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ৮০ লাখেরও বেশি মানুষ। আর এসব মানুষদের স্মরণে দেশজুড়ে ৮০ লাখেরও বেশি বৃক্ষরোপনের ঘোষণা দিয়েছে দেশটির সরকার।

১৯৬৪ সালে ফার্ক বিদ্রোহীদের সঙ্গে সরকারি বাহিনীর সংঘের্ষের সূত্রপাত হয়। পাঁচ দশক ধরে চলা এই সংঘর্ষে নিহত হয়েছে ২ লাখ ৬০ হাজার মানুষ। নিখোঁজ হয়েছে আরো ৪৫ হাজার মানুষ। এছাড়া গৃহহীন হয়েছে দেশটির লাখ লাখ বাসিন্দা। কিউবার প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ত্রোর উপস্থিতিতে গত জুনে রাজধানী হাভানায় শান্তিচুক্তিতে স্বাক্ষর করেন কলম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট জুয়ান ম্যানুয়েল সান্তোস ও ফার্ক আন্দোলনের নেতা রড্রিগো লনদনো।

শুক্রবার কলম্বিয়ার দক্ষিণ-পূর্বের শহর মিতুতে প্রথম বৃক্ষটি রোপন করেন প্রেসিডেন্ট সান্তোস। এখানে যে সুবিশাল বন সৃষ্টির পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, তার নাম দেওয়া হয়েছে ‘শান্তির বন’। সেভিং দ্য অ্যামজন নামে বেসরকারি একটি সংস্থা এর উদ্যোক্তা।

সান্তোস বলেন, ‘সংঘর্ষে যে ৮০ লাখেরও বেশি মানুষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে, আমরা তাদের সমসংখ্যক বৃক্ষরোপন করব, যাতে যে সশস্ত্র সংঘর্ষের নৃশংসা আমাদের মাঝে গ্রাস করেছিল তা আর না ঘটে। ক্ষতিগ্রস্থ প্রত্যেক ব্যক্তির নামে একটি কর গাছ রোপন করা হবে।’

তিনি বলেন, ‘এই শান্তির বনের নিয়ন্ত্রণ ও ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে থাকবে আদিবাসীরা। এটা কীভাবে করতে হবে তা তারা ভালোভাবেই জানে।’






মন্তব্য চালু নেই