মেইন ম্যেনু

৯দিনেও উদ্ধার হয়নি রেলের ইঞ্জিন ও ওয়াগন

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে সেতু ভেঙে খালে পড়ে যাওয়া রেলের ইঞ্জিন ও তেলবাহী ওয়াগন গত ৯দিনেও উদ্ধার করতে পারেনি রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

সর্বশেষ রেলওয়ে নিজেরা ব্যর্থ হওয়ার পর খাল থেকে ইঞ্জিন ও তেলবাহী তিনটি ওয়াগন উদ্ধার করতে ১৯ লাখ টাকায় মেসার্স মাঈনুদ্দিন সালভেজ নামক একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে দায়িত্ব দিয়েছে। এই প্রতিষ্ঠান আগামী পাঁচদিনের মধ্যেই খাল থেকে ইঞ্জিন ও ওয়াগন উদ্ধার করে আনবে বলে রেলওয়ের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক চুক্তি করেছে।

রোববার সকাল থেকেই এই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানটি তাদের উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক মোজাম্মেল হক জানান, ঝুঁকিপূর্ণ কালুরঘাট রেল সেতুর উপর দিয়ে রেলের সবচেয়ে বড় উদ্ধারকারী ক্রেন ঘটনাস্থলে নিতে না পারায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স মাঈনুদ্দিন সালভেজের সঙ্গে চুক্তি করেছে রেলওয়ে। প্রতিষ্ঠানটি পাঁচদিনের মধ্যে খাল থেকে রেল ইঞ্জিন ও তিনটি তেলবাহী ওয়াগন উদ্ধার করে আনবে। ইতিমধ্যে প্রতিষ্ঠানটি তাদের উদ্ধার কাজ শুরু করেছে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ জুন দুপুরে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলায় রেলের ২৪ নং রেলসেতু ভেঙে একটি তেলবাহী ওয়াগন ট্রেনের ইঞ্জিন ও তিনটি ওয়াগন খালে পড়ে যায়। এতে ফার্নেস অয়েলে দূষিত হয়ে পড়ে বোয়ালখালী খাল, কর্ণফুলী নদী এবং হালদা নদী। দুর্ঘটনার পর থেকে চট্টগ্রাম দোহাজারী রেলপথে রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই