মেইন ম্যেনু

৯ জানুয়ারি হতে সাবধানে থাকুন!

আপনি কী প্রেম করেন ? আপনার পার্টনার আপনাকে পর্যাপ্ত সময় দেন তো? আপনাদের মধ্যে সম্পর্কের মধ্যে কোনও জটিলতা তৈরি হয়নি তো? যারা প্রেম করেন তারা এই বিষয়গুলিকে অবশ্যই মাথায় রাখবেন। তাদের জন্য এটা একটা সতর্কবার্তা।

যদি দেখেন আপনাকে সময় না দিয়ে আপনার পার্টনার বেশি সময় দিচ্ছেন নিজের ফোন বা কম্পিটারকে, তাহলে বিষয়টা একটু ভেবে দেখবেন। খুব সাবধান। নতুন বছরে প্রেম গাঢ় হওয়ার বদলে কিন্তু, এবার কেঁচে যেতে পারে। তার সম্ভাবনাটাও কিন্তু, একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ একটি সমীক্ষা থেকে দেখা গেছে, সম্প্রতি ক্রিসমাসের পরই ডেটিং সাইটগুলিতে প্রচুর পরিমাণে নতুন ইউজ়ারের দেখা পাওয়া যাচ্ছে। প্রচুর নতুন ইউজ়ারকে অ্যাকাউন্ট খুলতে দেখা যাচ্ছে।

গ্লিডেন নামে একটি ডেটিং সাইট সম্প্রতি একটি সমীক্ষা করেছে। সেই সমীক্ষা থেকে দেখা গেছে, ক্রিসমাসের পর এই সাইটে সবথেকে ব্যস্ততা লক্ষ্য করা গেছে। এমনকী, ক্রিসমাস পরবর্তী দ্বিতীয় সোমবার অর্থাৎ ৯ জানুয়ারি সব থেকে বেশি ব্যস্ততা লক্ষ্য করা যাবে। গতবছর ক্রিসমাসের পর দ্বিতীয় সোমবার ছিল ১১ জানুয়ারি। ওইদিন সবথেকে বেশি পরিমাণ লোকজন ওই সাইটে অ্যাকাউন্ট খুলেছিল। সেই হিসাব ধরেই গ্লিডেন জানিয়েছে, ক্রিসমাসের পর দ্বিতীয় সোমবার আপনার পার্টনার আপনার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতেই পারেন।

গ্লিডেনের এক কর্তা বলেন, এই সাইটের মেম্বার সংখ্যা প্রায় ৩ মিলিয়ন। সমীক্ষা থেকে দেখা গেছে, নতুন বছর পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই সাইটের মেম্বার সংখ্যা বাড়তে থাকে। এবছরও সাইটে অ্যাকাউন্ট খুলেছেন রেকর্ড সংখ্যক সদস্য।

সার্ভে থেকে দেখা গেছে, সাধারণ মানুষ নতুন বছরের সঙ্গে নতুনভাবে নিজের পার্টনারকে খুঁজে নেওয়ার চেষ্টা করেন। যেন পুরনো বছরের একঘেয়েমি কাটিয়ে কিছুটা নতুন করে বেঁচে নেওয়া। তাই প্রত্যেকেই চান নতুন পার্টনার। আর সেই সময়তেই হাতের কাছে মনের মতো পার্টনার খুঁজে পাওয়ার জন্য ডেটিং সাইটে হাতড়ে বেড়ান অনেকেই।

সাইটে অ্যাকাউন্ট খোলার প্রবণতাও বেড়ে চলে। এর পাশাপাশি সম্পর্কে ভাঙার প্রবণতাও বাড়তে থাকে। তাই নিজের সম্পর্ককে টিকিয়ে রাখতে ফোন বা কাজের পাশাপাশি একটু নিজের পার্টনারকেও সময় দিন। তাহলেই একবারে বিন্দাস থাকবে আপনাদের সম্পর্ক। সূত্র : ইনাডু ইন্ডিয়া






মন্তব্য চালু নেই